শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০, ০৪:১৭ পূর্বাহ্ন২৭শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তানের উদ্যোগে ৫০টি পরিবারের মধ্যে খাদ্য বিতরণ তাহিরপুর থানা পুলিশের উদ্যোগে ত্রান সামগ্রী বিতরন-নিউ টাইমস্২৪ করোনা প্রতিরোধে হুরয়ার কান্দা গ্রামে সচেতনতা সৃষ্টি -নিউ টাইমস্২৪ সকল নাগরিকের পানির বিল মওকুফ করলাম আপনারা সকল বাড়ি ভাড়া মওকুফ করুন-মেয়র নাদের বখত বিনামূল্যে সেবার জন্য এম্বুলেন্স প্রদান করেন ব্যারিষ্টার এম এনামুল কবির ইমন- নিউ টাইমর্স২৪ আব্দুল মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ ফাঁসির রায় কার্যকরে সমস্যা নেই-নিউ টাইমস্২৪ ডিসি,পুলিশ সুপার,সিভিল সার্জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে-নিউ টাইমস্২৪ সৌদি আরবে ঘুমন্ত অবস্থায় ৪ বাংলাদেশীর মৃত্যু-নিউ টাইমস্২৪ যুক্তরাজ্যে করোনায় তিন বাংলাদেশীর মৃত্যু-নিউ টাইমস্২৪ জেলায় কমপক্ষে তিনটি যানবাহন প্রস্তুত রাখার নির্দেশনা-নিউ টাইমস্২৪
ইতালিতে মাফিয়াদের বিরুদ্ধে লড়েছিলেন যে বাঙালীরা

ইতালিতে মাফিয়াদের বিরুদ্ধে লড়েছিলেন যে বাঙালীরা

অভিবাসীরা যে দেশে যায়, তারা সে দেশের ওপর বোঝা হয়ে দাঁড়ায় বলেই একটা ধারণা প্রচলিত।

কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অভিবাসীরাও সে দেশের সমাজ জীবনে নানা ধরনের ইতিবাচক ভূমিকা রাখেন, যা নিয়ে প্রচার খুব হয় কমই।

তেমনি একটি ঘটনা ঘটিয়েছেন ইতালির সিসিলি দ্বীপের শহর পালেরমোতে বাংলাদেশি এবং অন্যান্য অভিবাসীরা।

সেখানে তারা ইতালির কুখ্যাত অপরাধী চক্র মাফিয়ার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়িয়েছিলে। এর জেরে বহু মাফিয়া সদস্যকে আটক করে বিচার করা হয়।

আজ বিশ্ব অভিবাসী দিবসে সেই গল্পই বলছিলেন ইতালির পালেরমো ব্যবসায়ী আশরাফ উদ্দিন।

শুরুর দিকে যেভাবে নির্যাতিত হয়েছেন

তিনি বলছেন, “প্রথম যখন এখানে আমরা আসছিলাম, তখন আমরা সংখ্যায় কম ছিলাম। তখন বাঙালিরা এখানে খুব একটা প্রতিষ্ঠিত ছিল না। ওরা বিভিন্ন সময় আমাদের ছিনতাই করতো, রাস্তাঘাটে মারত, এরকম ঘটনাগুলো ঘটতো।”

যখন নির্যাতনের শিকার হতেন তখন তারা বিদেশের মাটিতে সংখ্যায় কম ছিলেন বলে কিছু বলতে পারতেন না। বিশেষ করে মাফিয়াদের বিরুদ্ধে লড়াই করার সাহস তাদের ছিল না।

স্থানীয়রা অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী ছিল তাই তাদের বদলে বিদেশের মাটিতে দুর্বল অবস্থায় থাকা মানুষদের মাফিয়ারা টার্গেট করতো। তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে মাফিয়ারা চাঁদাবাজি করতো।

আশরাফ উদ্দিন বলছেন, “২০০০ সালের পর থেকে আমরা বাঙালিরা যখন একটু সামনে এগুতে থাকলাম, তখন ওরা আমাদের পিছু নিলো। তারা দোকান এসে বলতো একটা অনুষ্ঠান করবো বা গির্জার জন্য টাকা তুলছি। এইরকম সমস্যাগুলো করতো ওরা।”

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT