মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:৩৪ অপরাহ্ন১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
সুনামগঞ্জে সহকারী শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে হারিছ উদ্দিনের স্বরণ সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে মৎস্যজীবি লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন হাওর বিষয়ক মন্ত্রণালয় বাস্তবায়ন আন্দোলন ফোরামের সংবাদ সম্মেলন স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীরা বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবীতে কর্মবিরতি পালন নাজমুল হকের অকাল মৃত্যুতে নারী নেত্রী ফেরদৌস আরা পাখি”র শোক ও সমবেদনা দিরাই উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে মত বিনিময় করেন ডক্টর সামছুল হক চৌধুরী মাদ্রাসা উন্নয়নে নগদ অর্থ প্রদান করেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবু বক্কর খাঁন সার্চ মানবাধিকার সংগঠনের উদ্যোগে ড. সামছুল হক চৌধুরী ও আবু বক্কর খাঁনকে সংবর্ধনা প্রদান এমপিও নীতিমালার বৈষম্য দূরীকরণের দাবীতে মানববন্ধন সুনামগঞ্জে যুব মহিলালীগের সদর উপজেলা ও পৌর কমিটি অনুমোদন
ইরাক এসে ঈদ ভুলে গেছি শিহাব

ইরাক এসে ঈদ ভুলে গেছি শিহাব

প্রবাস খবরঃ

মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদকে কেন্দ্র করে মানুষের প্রত্যাশা আর প্রস্তুতির কমতি থাকে না। একের পর এক ঈদ আসে যায়, প্রবাসীদের ঈদ রয়ে যায় নিঃসঙ্গতায়

ফজরের আজানের পর দল বেঁধে ছোটাছুটি করে গোসল সেরে মিষ্টি মুখে নতুন জামা-কাপড় পরে ঈদগাহ মাঠে যাওয়া প্রবাসীদের জন্য যেন শুধুই স্মৃতি। নামাজ পড়তে যাওয়ার সময় পাশের বাড়ির কেউ ডাক দিয়ে বলে না- সেমাই খেয়ে যাও। শত কর্মব্যস্ততার মাঝে ঈদের ছুটিতে লম্বা ঘুম অধিকাংশ প্রবাসীর ঈদের দিনে মূল কর্মসূচি।

‘ঈদের ঠিক আগের দিন থেকে মন খারাপ হতে শুরু করে। রাত পেরিয়ে সকালবেলা ঘুম ভাঙার পর আশপাশে যখন কাউকে খুঁজে পাওয়া যায় না, তখন নিজের অজান্তেই চোখে পানি চলে আসে। মনে পড়ে যায় চিরচেনা গ্রামে ঈদ উদযাপনের স্মৃতিগুলো।’

ঈদ মানেই আনন্দ ঈদ মানেই খুশি। এই কথাটি দেশে থাকতে খুব শুনতে পেতাম। ঈদের আগে কেনাকাটা, বন্ধুদের ইফতার করানো, কোনো শপিং সেন্টারে গিয়ে ঘুরে আসা। আর ঈদের দিন সকালে নামাজ পড়ে মা-বাবাকে সালাম করা। আত্মীয় স্বজনের বাসায় বেড়াতে যাওয়া। দেশে থাকতে এভাবেই কাটতো আমার ঈদ।

আবেগাপ্লুত হয়ে কথাগুলো বলছিলেন ইরাক প্রবাসী কল্যাণ পরিষদ সংগঠনের সভাপতি
Shihab Iraq Tv ইউটিউব চ্যানেলের পরিচালক মোঃশাহাব উদ্দিন শিহাব বলেন, ‘যখন দেশে ছিলাম আমার ঈদ ছিল অন্যরকম। সকালে ঈদের নামাজ পড়ে মা-বাবা ও বন্ধুদের সঙ্গে সময় দিয়ে বিকেলে বড় আপাদের বাড়িতে যেতাম। ঈদ উপলক্ষে নানা খেলার আয়োজন করতাম। ভিন্নরকম সাজে সজ্জিত হতো। সবার সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করা বড় ভাইয়া আপুদের কাছ থেকে সালামি নেয়া এইভাবে ঈদের দিন পার করে দিতাম।’

‘বলতে গেলে আমার ঈদে একটি বিশেষ মাত্রা যোগ হতো
৭ বছর ধরে ঈদ কি সেটাই ভুলে গিয়েছি। ঈদের দিন নামাজ পড়ার পর হয়তোবা বাসায় থাকি না হলে কাজে চলে যাই।’

‘পরিবার-পরিজন বন্ধুদের ছেড়ে প্রবাসে ঈদ আমার কাছে মূল্যহীন। কারণ ঈদের নামাজের পর প্রথম বাবা-মার সঙ্গে দেখা করে সালাম করতাম। কিন্তু প্রবাসে তা সম্ভব হয়ে উঠে না। প্রবাসে ঈদ মানে নামাজ পড়ে কাজে চলে যাওয়া। আসলে বলতে গেলে প্রবাসে আমরা সবাই রোবট হয়ে যাই। আবেগ অনুভূতি কিছুই কাজ করে না।’

তবে মনের মধ্যে একটি চাপা কষ্ট থেকে যায়। কেউ তা প্রকাশ করে না। সবার কষ্ট বিসর্জন দিয়ে ভাগ্য পরিবর্তনের আশায় সবার সঙ্গে হাসিমুখে ঈদ উদযাপন করে। কিন্তু পরিবার ছাড়া ঈদ করার যে চাপা কষ্ট সেটি আমরা প্রবাসীরা কখনো তা প্রকাশ করতে পারি না।

শিহাব বলেন ‘আমরা প্রবাসীরা শুধু দিতে জানি, নিতে জানি না। বছরের পর বছর এই কাজটি আমরা হাসিমুখে করে যাচ্ছি। দেশ থেকে স্বজনেরা একটু হাসিমুখে কথা বললেই আমরা ভুলে যাই প্রবাসের সব কষ্ট।’

বলেন, ‘ইরাকে খুব বেশি বাংলাদেশি একে উপরের সাথে দেখা করতে পারেনা। ঈদের দিন কারো দেখা পাওয়া যায় না বললেই চলে। আশেপাশে থেকে কিছু প্রবাসী বন্ধু-বান্ধব আসে। তাদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নেয়ার চেষ্টা করি। তখন বাড়ির কথা খুব মনে পড়ে।’

প্রথিবীতে প্রবাসের কষ্টটা একটু অন্য ধরনের। সব আছে, তবু যেন কিছুই নেই। প্রবাসী না হওয়া পর্যন্ত কেউ তাদের কষ্ট অনুভব করতে পারবে না। প্রবাসীদের কষ্টে বাড়তি মাত্রা যোগ করে ঈদ এবং বিশেষ উৎসবের দিনগুলো।

শেয়ার করুন
  • 254
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT