মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০১:৫৭ অপরাহ্ন২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
না ফেরার দেশে চলে গেলেন জনপ্রিয় অভিনেতা শাহিন আলম কেক কাটা সহ নানান কর্মসূচীর মধ্যে দিয়ে সুনামগঞ্জে পুলিশের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালিত এইচ টি ইমাম এর মৃত্যুতে আলহাজ্ব মতিউর রহমানের শোক জগন্নাথপুরের ১১৪ নং দক্ষিণ প্রভাকরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন দক্ষিণ সুনামগঞ্জে লোকনাথ পূজাঁয় প্রতিপক্ষের চুরিকাঘাতে নিহত ১ আহত ২জন বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু”র রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন সম্পন্ন ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রনজিত চৌধুরী রাজনকে হত্যা করার চেষ্টার অভিযোগ বহুবিবাহ ঠেকাতে বিবাহ পদ্ধতি ডিজিটাল করা জরুরি : ফররুখ শাহজাদ চলে গেলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু ই‌ন্তেকাল বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন যুক্তরাজ্য শাখার উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত
করোনা প্রতিরোধে সাংবাদিক এম এ মোতালিবের পরামর্শ-নিউ টাইমস্২৪

করোনা প্রতিরোধে সাংবাদিক এম এ মোতালিবের পরামর্শ-নিউ টাইমস্২৪

আমার প্রিয়জনদের উদ্দেশ্যে বলছি, কোথায় আছেন,ঘরে আছেন তো?কেমন আছেন জানতে চাইলাম না,কারণ দেশ আর জাতির এই সংকটাপূর্ণ অবস্থায় ভালো থাকবেন না, জানি ভালো থাকার কথাও নয়।
যারা ঘর থেকে নিয়মিত বের হচ্ছেন-যেমন ডাক্তার, পুলিশ,সাংবাদিক,নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিক্রেতা,তাঁদের উদ্দেশ্যে বলছি,আপনারা বের হোন কারণ আপনাদের অনুপস্থিতিতে দেশ ও জাতি সম্পূর্ণ অচল।আপনারা দেশ ও জাতির জন্য যে আত্মত্যাগের দৃষ্টান্ত তোলে ধরেছেন, তা জাতিও দেশ মনে রাখবে।
আর কিছু সংখ্যক লোক যারা শুধু বন্ধের অপব্যবহার করে বিনোদনের জন্য জায়গায় জায়গায় জটলা করে দেশও জাতিকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছেন,তাঁদেরও বলছি আপনাদেরও দেশ আর জাতি মনে রাখবে,তবে ভালোবেসে নয় অবশ্যই ঘৃণা ভরে।
জাতির উদ্দেশ্যে বলছি, দেশের এই সংকটে আবেগ দিয়ে নয়,বিবেক নির্ভর হয়ে চলুন।মনে রাখবেন- আমরা অদৃশ্য শক্তির বিরুদ্ধে বেঁচে থাকার যুদ্ধে নেমেছি।আমরা যতো বেশী সতর্ক ও বুদ্ধিমত্তার সাথে যুদ্ধ করবো ততো শীঘ্রই আমরা জয়ী হয়ে সুস্থ জীবনে ফিরে আসবো, অন্যথায় আমাদের কপালে ভীষণ দুঃখ অপেক্ষা করছে।মনে রাখবেন কোনো যুদ্ধই কারো একার পক্ষে জেতা সম্ভব নয়।সম্মিলিত শক্তিই হলো জেতার উৎস। আরো মনে রাখবেন আমাদের বাঁচতে হবে,আর এই বাঁচার জন্য সর্বমূল্যে প্রস্তুত থাকতে হবে কারণ মরে গিয়ে যুদ্ধ জেতা যায়না।
দেশও জাতির কাছে আজ কাতর নিবেদন করছি, আপনারা প্রস্তুত হন।এ যুদ্ধ শুধু কিছুদিনের জন্য নয়, আমাদের অসাবধানতা বশতঃ এ যুদ্ধ অনেক দীর্ঘায়িত হতে পারে।তাই আমাদের সংযমী হতে হবে।যুদ্ধক্ষেত্রে সৈনিকরা যেমন অর্ধাহারে অনাহারে বুক চিতিয়ে লড়ে যায়,তদ্রূপ আমাদের ও প্রস্তুতি নিতে হবে।আমাদের খাদ্য সামগ্রী,নিত্য ব্যবহার্য সামগ্রী প্রয়োজনের চেয়েও কম ব্যয় করে আগামী দিনের জন্য সঞ্চয় করে রাখতে হবে।এ যুদ্ধ যতো ব্যাপক হবে ততোই খাদ্য শস্য,চাল ডালের আকাল দেখা দেবে।সরকারের দিকে চেয়ে থাকলে আমাদের অবস্থা আরো করুণ হয়ে পড়বে কারণ ১৭ কোটিরও অধিক জনসংখ্যা থাকা দেশে সরকার কিছু দৈবিক চমৎকার করে ফেলবে এমন আশা করা অন্যায়।তাই সরকার নয় দেশকে বাঁচাবার যুদ্ধে আমরা সর্বপ্রকার ত্যাগ স্বীকারের প্রস্তুতি নিয়ে নেই।দেশ স্বাধীন করার জন্য লক্ষ লক্ষ বীরেরা প্রাণ দিয়েছিলো যাদের নিয়ে আজও আমরা গর্ব করি।আজ আমাদের কাছে অসহায় দেশ প্রাণ ভিক্ষা চাইছে, আসুন আমরাও ইতিহাসে জায়গা করে নেই।আসুন আমরা ও দেশকে বলি, সেই জন্ম নেওয়া অবধি তোমার আলো, বাতাস,অন্ন পানি খেয়েছি, আজ যদি খেতে নাও পাই আমরা যুদ্ধ করবো।আমরা হারবো না।পাকিস্থাবের গুলি খেতে যদি আমাদের ভাইয়েরা ভয় পায়নি তবে আমরা খাবার না পাবার ভয়ে পিছিয়ে যাবোনা।আমরা ঘরে আছি,ঘরে থাকবো।আমরা দেশও জাতির স্বার্থে আমাদের চাহিদাগুলো বিসর্জন করে দেবো।
আমরা দলীয়করণ,আত্বীয়করণ,স্বজনপ্রীতি, জাতি ধর্মের সংঘাত দিয়ে খুন হিংসায় দেশের ইতিহাস কলঙ্কিত করে দিয়েছিলাম,এইবার ভালোবাসা আর সংযম দিয়ে সেই কলঙ্কের দাগ মুছে দেবো।সমস্ত বিশ্ব যেখানে হেরে গেছে সেখানে দাঁড়িয়ে আমরা জয়ী হয়ে বিশ্বকে দেখিয়ে দেবো বাংলাদেশ হারতে জানেনা।বিশ্ব দেখবে আজ আমরা আওয়ামীলীগ,বিএনপি,জাতীয়পাঠি, জামায়াতে ইসলামী,মুসলিম,
হিন্দু, খ্রিস্টান নই আমরা সবাই বাংলাদেশী।
আসুন আমরা দু-বেলা খাই।একবেলার খাবার আমার অনাহারে থাকা প্রতিবেশীকে তোলে দেই।কতো শতবার প্রতিবেশীর প্রাণ কেড়ে নিয়েছি রাজনৈতিক দলের নামে,আজ প্রতিবেশীর মৃত শরীরে প্রাণ সঞ্চার করে দিই দেশের নামে।হ্যাঁ,আমরাই পারি,অসাধ্য সাধন করার ক্ষমতা আমাদের আছে।আজ প্রতিবেশীই আমাকে বাঁচতে সাহায্য করবে।আমার জন্যই সে ঘরে থেকে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে।মানুষ মানুষেরই জন্য কথাটা আগেও প্রাসঙ্গিক ছিলো কিন্তু আমরা খেয়াল করিনি,এইবার ঘুম ভেঙে জাগার পালা।হ্যাঁ আমরা দেশের এই সংকটে জেগে ওঠেছি।আসুন সবাই মিলে ঘরে থাকি,সবাই মিলে যুদ্ধ করি।আমরাই করবো জয়।

লেখক :সাংবাদিক এম এ মোতালিব ভুইয়া

শেয়ার করুন
  • 88
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT