বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৫:২৩ অপরাহ্ন১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
বামিংহামে করোনা দূর্যোগে খাবার বিতরণ করেন আলহাজ্ব কবির উদ্দিন ও ওয়াছিমুজ্জামান ছাতকে মধ্যরাতে জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণ-গ্রেপ্তার ১ সুনামগঞ্জে সহকারী শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে হারিছ উদ্দিনের স্বরণ সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে মৎস্যজীবি লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন হাওর বিষয়ক মন্ত্রণালয় বাস্তবায়ন আন্দোলন ফোরামের সংবাদ সম্মেলন স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীরা বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবীতে কর্মবিরতি পালন নাজমুল হকের অকাল মৃত্যুতে নারী নেত্রী ফেরদৌস আরা পাখি”র শোক ও সমবেদনা দিরাই উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে মত বিনিময় করেন ডক্টর সামছুল হক চৌধুরী মাদ্রাসা উন্নয়নে নগদ অর্থ প্রদান করেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবু বক্কর খাঁন সার্চ মানবাধিকার সংগঠনের উদ্যোগে ড. সামছুল হক চৌধুরী ও আবু বক্কর খাঁনকে সংবর্ধনা প্রদান
কৃষকের ধান কেটে দিলো নেত্রকোনা জাতীয় যুব শ্রমিকলীগের নেতৃবৃন্দ

কৃষকের ধান কেটে দিলো নেত্রকোনা জাতীয় যুব শ্রমিকলীগের নেতৃবৃন্দ

বিশেষ প্রতিনিধিঃ সারাদেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে চলতি বোরো মৌসুমে ব্যাপকভাবে ধান কাটার শ্রমিক সংকটের কারণে যখন কৃষকরা দিশেহারা। তখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মোতাবেক নেত্রকোনা জেলা যুব শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জালাল উদ্দিনের নেতৃত্বে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন যুব শ্রমিকলীগ। করোনা ভাইরাসের কারণে এ অবস্থায় হতদরিদ্র চাষীদের ধান কেটে দিচ্ছে যুব শ্রমিকলীগের নেতা কর্মীরা।
বুধবার (২২ এপ্রিল) সকালে সদর উপজেলা ৩ নং ঠাকুরাকোনা ইউনিয়নের যুব শ্রমিকলীগের ১০ সদস্যের একটি টিম একই ইউনিয়নের ৯নং দুর্গাশ্রম পূর্বপাড়া গ্রামের আব্দুর রশিদ মিয়া নামের এক কৃষকের ধান কেটে দেয়। এই মহামারির সময়ে বিনা পারিশ্রমিতে ধান কেটে দেওয়ায় খুশি দরিদ্র কৃষকসহ এলাকাবাসী।
এ সময় ঠাকুরাকোণা ইউনিয়ন যুব শ্রমিকলীগে
এর সভাপতি মানিক, সাধারণ সম্পাদক ওয়াসিম, সাংগঠনিক রুবেল, সদস্য রিয়াদ নবী সহ আরো অন্যান্য নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। কৃষকদের ধান কেটে দিতে ওই ইউনিয়নে ১০ সদস্যের একটি টিম করেছে যুব শ্রমিকলীগ । এই টিম হতদরিদ্র চাষীদের বিনা পারিশ্রমিকে ধান কেটে দেবে বলে জানিয়েছে।
কৃষক আব্দুর রশিদ মিয়া বলেন, জমিতে ধান পেকে গেছে। কয়েকদিন ধরে ধান কাটার জন্য শ্রমিক খুঁজছিলাম। এ অবস্থায় যুব শ্রমিকলীগ নেতা মানিক তার দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে আমার ক্ষেতের ধান কেটে দিলো। এই ধান কেটে দেওয়ায় আমার খুব উপকার হয়েছে। আমি ইউনিয়ন যুব শ্রমিকলীগকে ধন্যবাদ জানাই।
জেলা যুব শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জালাল উদ্দিন বলেন, বর্তমানে আমাদের এ উপজেলায় ধান কাটার জন্য শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। এদিকটা বিবেচনা করে আমরা সদর উপজেলার যে কোনো ইউনিয়নের কৃষকদের আমাদের এই টিম হতদরিদ্র ও বরগা চাষীদের বিনা পারিশ্রমিকে ধান কেটে দিবে।
এবং তিনি আরো কৃষক ভাইদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, যেই পর্যন্ত এই ধান কৃষকের বাড়িতে না যাবে সেই পর্যন্তই কৃষকের সাথে আমরা সহযোগিতা করে যাবো। কৃষকদের সাথে আছি, সাথে থাকবো। কৃষক বাঁচলে-বাঁচবে দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ।

শেয়ার করুন
  • 221
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT