মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৩:০২ অপরাহ্ন৬ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
তাহিরপুর উপজেলায় জাতীয় সংগীত প্রতিযোগীতায় প্রথম স্থান অর্জনে তেঁলীগাও সপ্রাবি জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পাল আর নেই “প্রেম পাগলের ভালোবাসা’ মুক্তি পেল ফের আলোচিত নয়ন দয়া তাহিরপুর উপজেলায় হযরত ক্কারী নূর আলী শাহ্’র উরুস বুধবার দোয়ারাবাজার উপজেলায় ব্রীজের ছাদ ঢালাইয়ের উদ্বোধন “মাদক-সন্ত্রাস প্রতিরোধ আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক মত বিনিময় সভায়” এস পি মিজানুর রহমান নন্দীগ্রামে আ’লীগের ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ তাহিরপুর উপজেলায় একাধিক ফসল রক্ষা বাঁধের কাজ ধীরগতিতে তাহিরপুরে ওসির প্রচেষ্টায় পাঠলাই নদীর নৌ যানজট নিরসন মোটরবাইকে ৪ জন আরোহী, পিলারের ধাক্কায় ২জনের মৃত্যু
কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের দিকে তাকিয়ে সুনামগঞ্জবাসী কে হবেন কান্ডারী।

কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের দিকে তাকিয়ে সুনামগঞ্জবাসী কে হবেন কান্ডারী।

বিশেষ প্রতিনিধিঃ প্রাচীনতম সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২১ তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে কাউন্সিলের মধ্যে দিয়ে নবম বারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন শেখ হাসিনা আর পুনরায় সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন ওবায়দুল কাদের। এরপর একে একে কমিটির অন্যান্য পদের নাম ঘোষণা করেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনা এম পি। উক্ত কমিটিতে এখনো পদ ফাঁকা রয়েছে অনেক গুলো। তাই এখনো হতাশ নয় সুনামগঞ্জ জেলাবাসী।
দলটির কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পেতে সুনামগঞ্জের বেশ কয়েক জন নেতার নাম শুনা যাচ্ছি ছিল। সুনামগঞ্জ জেলা থেকে আওয়ামীলীগ তথা জাতীয় রাজনীতিতে এক সময় আলো ছড়াতেন সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী এবং প্রেসিডিয়াম সদস্য মরহুম আব্দুস সামাদ আজাদ, সাবেক মন্ত্রী ও প্রেসিডিয়াম সদস্য স্বর্গীয় বাবু সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত তারকা নেতারা। অন্যদিকে ছিলেন এই প্রজন্ম চলে যাওয়ার পর সুনামগঞ্জের রাজনীতিতে একটা বিশাল শূন্যতা তৈরি হয়েছে। এ শূন্যতা অপূরণীয়।সদ্য সমাপ্ত আওয়ামী লীগের কাউন্সিল উত্তর নেতৃত্বের তালিকা দেখলে সুনামগঞ্জ জেলা বাসীর মানুষের হতাশ হওয়া ছাড়া কিছু নেই। এই শূন্যতা পূরণে নতুন কোনো সম্ভাবনাময়ী নেতৃত্ব প্রয়োজন তাই এখনো কেন্দ্রের দিকে তাকিয়ে আছে সুনামগঞ্জ জেলা বাসী।
নাম শোনা যাচ্ছে। স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত আব্দুস সামাদ আজাদ ও সাবেক রেলপথমন্ত্রী প্রয়াত সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের পরে সুনামগঞ্জ জেলা থেকে কেউ আর কেন্দ্রীয় কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ পদ পান নি। তাই নেতাকর্মীদের ধারণা এবারের সম্মেলনে সুনামগঞ্জের এক বা একাদিক নেতা কেন্দ্রে স্থান পেতে পারেন। তবে সামাদ-সুরঞ্জিতের পর সুনামগজ্ঞ জেলা আওয়াামীলীগের সভাপতি বর্ষিয়ান রাজনীতিবীদ আলহাজ্ব মতিউর রহমান কে জাতীয় কমিটিতে রাখার জন্য সুনামগঞ্জ ও বৃৃৃৃহত্তর সিলেট বাসী জোর দাবী জানিয়েছেন তৃনমূল নেতাকর্মীরা, এছাড়া যারা কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়া নিয়ে যারা আলোচনায় আছেন তারা হলেন, কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান, প্রয়াত সুরিঞ্জত সেন গুপ্তের স্ত্রী সাংসদ জয়া সেন গুপ্তা, জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত আব্দুস সামাদ আজাদের পুত্র আজিজুস সামাদ ডন।
এর মধ্যে এমএ মান্নান ও আলহাজ্ব মতিউর রহমান সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন ও আজিজুস সামাদ ডন আছেন সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আলোচনায়। এছাড়া জয়া সেন গুপ্তা দলের কোন সম্পাদকীয় পদে আসতে পারেন বলে আলোচনায় রয়েছেন। কেন্দ্রের দিকে তাকিয়ে পুরো সুনামগঞ্জ বাসী।

শেয়ার করুন
  • 377
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT