শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:২৬ পূর্বাহ্ন১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু”র রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন সম্পন্ন ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রনজিত চৌধুরী রাজনকে হত্যা করার চেষ্টার অভিযোগ বহুবিবাহ ঠেকাতে বিবাহ পদ্ধতি ডিজিটাল করা জরুরি : ফররুখ শাহজাদ চলে গেলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু ই‌ন্তেকাল বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন যুক্তরাজ্য শাখার উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হাওর ভাতা প্রাপ্যতার দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান ভাষা শহীদদের প্রতি পুরুষ অধিকার সংগঠনের শ্রদ্ধা নিবেদন মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে স্থাপিত শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ ভাষা দিবসে পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান ও প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠনের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ভাষা শহীদদের প্রতি সুনামগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দের শ্রদ্ধা
তাহিরপুরের যাদুকাটা নদীতে চাদাঁবাজির সময় দুই চিহিৃত চাদাঁবাজ আটক-নিউ টাইমস্২৪

তাহিরপুরের যাদুকাটা নদীতে চাদাঁবাজির সময় দুই চিহিৃত চাদাঁবাজ আটক-নিউ টাইমস্২৪

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের সীমান্তবর্তী তাহিরপুর উপজেলার যাদুকাটা নদীতে চাদাঁবাজিকালে দুই চিহিৃত চাদাঁবাজকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের একটি দল । আটককৃতরা হলেন মোঃ সুমন মিয়া(৩৫) ও তার ছোটভাই চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী মোঃ সাদ্দাম হোসেন(২৫)। এ সময় তাদের চাচা রুহুল মিয়া পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। আটককৃতরা বলেন উপজেলার বাদাঘাট ইুইনয়নের ঢালারপাড় গ্রামের সাইয়িদ ভান্ডারীর ছেলে। পালিয়ে যাওয়া চাদাঁবাজ ও একই গ্রামের ইমু মিয়ার ছেলে। স্থানীয় ও ডিবি সূত্রে জানা যায় এই চাঁদাবাজচক্রটি করোনা ভাইরাসের মতো মহামারীর সময়ও যাদুকাটা নদীতে বড় বড় বলগেট নৌকা আটকিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই চাদাবাজি করে আসছিলেন। তাদের অত্যাচার আর নির্যাতনে অতিষ্ট ছিল নৌকার মাঝিসহ আশপাশের লোকজন।
সোমবার দুপুরে সুনামগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা(ডিবি) পুলিশের ওসি মোঃ আতিকুর রহমানের নেতৃত্বে গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যাদুকাটা নদীতে অভিযান চালিয়ে আপন দুই সহোদর চিহিৃত চাঁদাবাজ সুমন ও সাদ্দামকে আটক করে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে আসে। এই দুই সহোদর অল্পদিনে নদীতে চাদাঁবাজি করে আঙ্গুল ফুলে করাগাছ বনেছেন এবং ইতিমধ্যে নিজ বাড়িতে বিল্ডিং নির্মাণ সহ অনেক টাকার মালিক হয়েছেন বলে ও জানা যায়। তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
এ ব্যাপারে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মোঃ আতিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান পুলিশ সুপার(স্যার) মিজানুর রহমানের নির্দেশেই তাদের আটক করা হয়েছে বলে ও তিনি জানান।

শেয়ার করুন
  • 38
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT