শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৩৮ অপরাহ্ন১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
জগন্নাথপুর পৌরসভার সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী আব্দুল মতিন লাকী দেশে আসছেন ১০ ডিসেম্বর বামিংহামে করোনা দূর্যোগে খাবার বিতরণ করেন আলহাজ্ব কবির উদ্দিন ও ওয়াছিমুজ্জামান ছাতকে মধ্যরাতে জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণ-গ্রেপ্তার ১ সুনামগঞ্জে সহকারী শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে হারিছ উদ্দিনের স্বরণ সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে মৎস্যজীবি লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন হাওর বিষয়ক মন্ত্রণালয় বাস্তবায়ন আন্দোলন ফোরামের সংবাদ সম্মেলন স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীরা বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবীতে কর্মবিরতি পালন নাজমুল হকের অকাল মৃত্যুতে নারী নেত্রী ফেরদৌস আরা পাখি”র শোক ও সমবেদনা দিরাই উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে মত বিনিময় করেন ডক্টর সামছুল হক চৌধুরী মাদ্রাসা উন্নয়নে নগদ অর্থ প্রদান করেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবু বক্কর খাঁন
তাহিরপুরের যাদুকাটা নদীতে চাদাঁবাজির সময় দুই চিহিৃত চাদাঁবাজ আটক-নিউ টাইমস্২৪

তাহিরপুরের যাদুকাটা নদীতে চাদাঁবাজির সময় দুই চিহিৃত চাদাঁবাজ আটক-নিউ টাইমস্২৪

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের সীমান্তবর্তী তাহিরপুর উপজেলার যাদুকাটা নদীতে চাদাঁবাজিকালে দুই চিহিৃত চাদাঁবাজকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের একটি দল । আটককৃতরা হলেন মোঃ সুমন মিয়া(৩৫) ও তার ছোটভাই চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী মোঃ সাদ্দাম হোসেন(২৫)। এ সময় তাদের চাচা রুহুল মিয়া পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। আটককৃতরা বলেন উপজেলার বাদাঘাট ইুইনয়নের ঢালারপাড় গ্রামের সাইয়িদ ভান্ডারীর ছেলে। পালিয়ে যাওয়া চাদাঁবাজ ও একই গ্রামের ইমু মিয়ার ছেলে। স্থানীয় ও ডিবি সূত্রে জানা যায় এই চাঁদাবাজচক্রটি করোনা ভাইরাসের মতো মহামারীর সময়ও যাদুকাটা নদীতে বড় বড় বলগেট নৌকা আটকিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই চাদাবাজি করে আসছিলেন। তাদের অত্যাচার আর নির্যাতনে অতিষ্ট ছিল নৌকার মাঝিসহ আশপাশের লোকজন।
সোমবার দুপুরে সুনামগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা(ডিবি) পুলিশের ওসি মোঃ আতিকুর রহমানের নেতৃত্বে গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যাদুকাটা নদীতে অভিযান চালিয়ে আপন দুই সহোদর চিহিৃত চাঁদাবাজ সুমন ও সাদ্দামকে আটক করে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে আসে। এই দুই সহোদর অল্পদিনে নদীতে চাদাঁবাজি করে আঙ্গুল ফুলে করাগাছ বনেছেন এবং ইতিমধ্যে নিজ বাড়িতে বিল্ডিং নির্মাণ সহ অনেক টাকার মালিক হয়েছেন বলে ও জানা যায়। তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
এ ব্যাপারে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মোঃ আতিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান পুলিশ সুপার(স্যার) মিজানুর রহমানের নির্দেশেই তাদের আটক করা হয়েছে বলে ও তিনি জানান।

শেয়ার করুন
  • 38
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT