বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ১১:৩৩ পূর্বাহ্ন১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
এইচ টি ইমাম এর মৃত্যুতে আলহাজ্ব মতিউর রহমানের শোক জগন্নাথপুরের ১১৪ নং দক্ষিণ প্রভাকরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন দক্ষিণ সুনামগঞ্জে লোকনাথ পূজাঁয় প্রতিপক্ষের চুরিকাঘাতে নিহত ১ আহত ২জন বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু”র রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন সম্পন্ন ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রনজিত চৌধুরী রাজনকে হত্যা করার চেষ্টার অভিযোগ বহুবিবাহ ঠেকাতে বিবাহ পদ্ধতি ডিজিটাল করা জরুরি : ফররুখ শাহজাদ চলে গেলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু ই‌ন্তেকাল বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন যুক্তরাজ্য শাখার উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হাওর ভাতা প্রাপ্যতার দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান ভাষা শহীদদের প্রতি পুরুষ অধিকার সংগঠনের শ্রদ্ধা নিবেদন
তাহিরপুরে নিত্য প্রয়োজনীয় পন্যের মূল্য বাড়িয়ে দিয়েছে দোকানীরা

তাহিরপুরে নিত্য প্রয়োজনীয় পন্যের মূল্য বাড়িয়ে দিয়েছে দোকানীরা

আবু জাহান তালুকদার, তাহিরপুর প্রতিনিধিঃ
সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে বিভিন্ন বাজারে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য সকালে এক দাম তো বিকালে আরেক দাম।

উপজেলার বাজার গুলোতে চাল, ডাল,পেঁয়াজ, চিনি ও তেলের দাম হু হু করে বাড়ছে। সাধারণ ক্রেতারা নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কিনতে গিয়ে এখন রিতিমতো হিমশিম খাচ্ছেন।

সুনামগঞ্জ জেলা তাহিরপুর উপজেলার বাণিজ্যকেন্দ্র বালিয়াঘাট বাজার, শ্রীপুর বাজার, কাউকান্দি বাজার, সুলেমানপুর বাজার,কলাগাও বাজার, বিভিন্ন বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে দোকানিরা কয়েকদিন আগেও এক বস্তা (৫০ কেজি) চাল ১৮শ টাকা ছিল, আজ একই চাল ২৩শ টাকা, পেঁয়াজ কেজি ৪০শ টাকা থেকে ৭০টাকা, চিনি ৬৫ থেকে ৮০টাকা, সোয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১শ থেকে ১২০ টাকা সহ ব্যবসায়ীরা যে যার মতো ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করছেন।

অপরদিকে ক্রেতারা পণ্য পাবেন না আসায় কেউ কেউ এক কেজির স্থলে ৩ থেকে ৪ কেজি করে ক্রয় করছেন বলে জানিয়েছেন নিত্য পণ্য ব্যাবসীরা।

তাহিরপুর উপজেলা তরং গ্রামের মামুন রশিদ আখঞ্জী জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাসের কারণে চাল সীমিত দেখিয়ে শ্রীপুর বাজারে যে চাল আগেও ১৮শ টাকা ছিল, সেই চালই ব্যবসীরা এখন প্রতি বস্তা ২৩শ টাকা ধরে বিক্রি করছেন।

নয়াবন্দ গ্রামের বায়েজিদ জানান,শনিবার বিকালে বাণিজ্য কেন্দ্র শ্রীপুর বাজারে গিয়ে পেয়াজ কিনতে চাইলে দোকানীরা পেয়াজ ৭০টাকা করে বলে।

তিনি বলেন, রবিবার সকালে বাজারে পুলিশ আসার সংবাদ পেয়েই ব্যবসায়ীরা পেয়াজঁ ৫৫ থেকে ৬০ টাকা করে বিক্রি করতে শুনেছেন।

নয়াবন্দ গ্রামের মাহবুব বলেন, বাজার থেকে ক’দিন আগে ১ বস্তা চাল নিয়েছেন ১৮শ টাকা দিয়ে এবং পেয়াজ নিয়েছেন ৫০ টাকা দিয়ে। এখন শুনি চালের বস্তা ২৩শ টাকা আর পেয়েজের কেজি ৭০টাকা। এই অবস্থা হলে সাধারণ ক্রেতারা ক্যামনে চলবে বলে মন্তব্য করেন।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জি এ বিষয়ে জানান, কোন অজুহাতেই দ্রব্য মূল্য বৃদ্ধি করা যাবে না। অবৈধভাবে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি এ উপজেলার ব্যাবসায়ীদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, দেশের এই সংকটকালীন মুহূর্তে, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করে অথবা পণ্যের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে, অধিক মুনাফা লাভের আশায়, দরিদ্র ক্রেতাদের জীবনযাত্রায় সীমাহীন দূর্ভোগ সৃষ্টি না করে তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য তিনি অনুরোধ জানান।

শেয়ার করুন
  • 179
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT