বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৯:২৭ অপরাহ্ন২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
সার্চ মানবাধিকার সোসাইটি বাংলাদেশ সিলেট জেলা কমিটি অনুমোদন- নিউ টাইমস২৪ দর্শক প্রিয় স্যাটেলাইট টিভি একুশের ২১তম জন্মদিন পালিত সুনামগঞ্জে করোনা আক্রান্ত অপু উকিলের সুস্থ কামনা করে যুব মহিলালীগের দোয়া ও মিলাদ মাহফিল তাহিরপুরে সাংবাদিক সহোদরকে প্রাণনাশের হুমকি সুনামগঞ্জে যাদুকাটা নদীতে লাখো শ্রমিকের কাজের দাবীতে শ্রমিকের মানববন্ধন ভাটি বাংলা মিডিয়া গ্রুপের চেয়ারম্যান এনামের উদ্যোগে শতাধিক পরিবারে রমজানের উপহার বিতরণ দেখার হাওরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন উপজেলা প্রশাসন ও সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগ চাঁদ দেখা গেলে রোজা- নিউ টাইমস২৪ সুনামগঞ্জে যুবলীগের উদ্যোগে অসহায় মানুষের মাঝে মাস্ক ও হেন্ড সেনিটাইজার বিতরণ লাখ টাকার ধান্দায় ব্যর্থ হয়ে খন্দকার আরজুর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র- নিউ টাইমস২৪
দোয়ারাবাজারে করোনা ভাইরাস সন্দেহে এক যুবক পলাতক এলাকায় আতংক-নিউ টাইমস্২৪

দোয়ারাবাজারে করোনা ভাইরাস সন্দেহে এক যুবক পলাতক এলাকায় আতংক-নিউ টাইমস্২৪

স্টাফ রিপোর্টারঃ দোয়ারাবাজারে করোনা ভাইরাস সন্দেহভাজন এক যুবক পলাতক রয়েছে। এতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে পুরো এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের টেংরাটিলা গ্রামে।
জানা যায়, পশ্চিম টেংরাটিলা গ্রামের যুবক দীর্ঘদিন ধরে ঢাকার গাজীপুরে কাজ করে আসছে। গত কয়েক দিন আগে তার ঢাকায় চিকিৎসকের শরণাপন্ন হলে তাকে করোনা সন্দেহভাজন চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেন চিকিৎসক। এরপর গুজব রটে করোনা
রোগীদেরকে নাকি ইনজেকশন দিয়ে মেরে ফেলা হচ্ছে। গুজবের জের ধরে ঢাকা থেকে গত শনিবার পালিয়ে এলাকায় চলে আসে সে। তার পরিবারও এই ঘটনা ধাপাচাপা দিয়ে রাখার চেষ্টা করে। ঘটনা জানাজানি হলে যাওয়ার পর থেকে ওই যুবক নিখোঁজ রয়েছে। তার কোনো সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না।
তবে অনেকে বলছেন, বাড়িতে আসার পথে ছাতক থেকে পালিয়েছে করোনা সন্দেহভাজন এই যুবক। এদিকে তার সাথে আসা এলাকার এক মহিলা এখনো পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে না থেকে এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয রা। এতে পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।
স্থানীয়রা জানান, করোনা সন্দেহভাজন যুবকের কোনো খোঁজ খবর পাওয়া যাচ্ছেনা এবং ঢাকা থেকে তার সাথে আসা মহিলাকে কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হলেও তা মানা হচ্ছেনা। এব্যাপারে তার পরিবারের সাথে মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও কাউকেই পাওয়া যায়নি।
সুরমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মামুনুর রশীদ বলেন, আমি পারিবারিক কাজে সিলেটে আছি। এলাকা থেকে সন্দেহভাজন যুবকের কথা জানিয়েছেন অনেকে। আমি তার পরিবারকে জানিয়েছি তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার জন্য। তবে এখন জানতে পারছি সে নাকি বাড়ি থেকে পালিয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানাব।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, আমরা এ ধরনের খবর পেয়ে খোঁজ নেওয়ার জন্য সকালে তার বাড়িতে স্বাস্থ্যকর্মী পাঠিয়েছিলাম। কিন্তু তাকে এবং তার পরিবারের কোনো সদস্যদেরক বাড়িতে পাওয়া যায়নি। জানতে পেরেছি ঢাকায় তাকে করোনা সন্দেহভাজন হিসেবে চিহ্নিত করার পর সে সেখান থেকে পালিয়ে এসেছে। তাকে না পাওয়ায় সুনির্দিষ্ট ভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না।
দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোনিয়া সুলতানা বলেন, এলাকা থেকে অভিযোগ এসেছে। তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এখন সে পলাতক রয়েছে। খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে। সে সত্যিই করোনা আক্রান্ত কিনা তা সুনির্দিষ্ট ভাবে বলা যাচ্ছে না।

শেয়ার করুন
  • 13
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT