রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১০:৪২ অপরাহ্ন১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীরা বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবীতে কর্মবিরতি পালন নাজমুল হকের অকাল মৃত্যুতে নারী নেত্রী ফেরদৌস আরা পাখি”র শোক ও সমবেদনা দিরাই উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে মত বিনিময় করেন ডক্টর সামছুল হক চৌধুরী মাদ্রাসা উন্নয়নে নগদ অর্থ প্রদান করেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবু বক্কর খাঁন সার্চ মানবাধিকার সংগঠনের উদ্যোগে ড. সামছুল হক চৌধুরী ও আবু বক্কর খাঁনকে সংবর্ধনা প্রদান এমপিও নীতিমালার বৈষম্য দূরীকরণের দাবীতে মানববন্ধন সুনামগঞ্জে যুব মহিলালীগের সদর উপজেলা ও পৌর কমিটি অনুমোদন স্মরণ উপ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় যুবলীগ নেতা হৃদয়’র অভিনন্দন দেশ ও প্রবাসের নতুন স্থান পেয়েছেন সার্চ মানবাধিকার সোসাইটি কেন্দ্রীয় কমিটিতে যুক্তরাজ্য প্রবাসী ডক্টর সামছুল হক চৌধুরীকে বিমানবন্দরে ফুলেল শুভেচছা প্রদান
দোয়ারাবাজারে গ্রামবাসীর অর্থায়নে তৈরি হচ্ছে মৌলা নদীর স্বপ্নের জনতা ব্রীজ।

দোয়ারাবাজারে গ্রামবাসীর অর্থায়নে তৈরি হচ্ছে মৌলা নদীর স্বপ্নের জনতা ব্রীজ।

এম এ মোতালিব ভুঁইয়া : সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের মৌলা নদীর উপর নির্মিত হচ্ছে স্বপ্নের জনতা ব্রীজ । ধন মিয়া মেম্বার ও গ্রামবাসীর নিজস্ব অর্থায়নে ও উদ্দোগে চলছে ১২০ ফিট লম্বা ব্রিজের নির্মাণ কাজ।
বুধবার (১১ ডিসেম্বর) বিকালে এলাকাবাসী স্বপ্নের জনতা ব্রীজের ভিত্তিপ্রস্তরস্থাপন করেন।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, কলোনী গ্রামের জন্মলগ্ন থেকে এই গ্রামটি আশেপাশের গ্রামগুলো থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন একটি গ্রাম।কলোনী গ্রামে কোন স্কুল- কলেজ, মাদ্রাসা , হাসপাতাল , হাঁট বাঁজার না থাকায় প্রতিদিন বাঁশের সাকো দিয়ে করে গিয়ে তাদের নিত্যদিনের কাজ সারতে হত। গ্রামটির জন্মলগ্ন থেকে এ পর্যন্ত নদীটির উপর কোন ধরনের ব্রীজ বা সেতু তৈরি করা হয়নি। যার কারণে কলোনী গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ ও কোমলমতি ছাত্র ছাত্রীরা বাশতলা চৌধুরীপাড়া শহীদস্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়, ইসলামপুর ছিদ্দিকিয়া দাখিল মাদ্রাসা, কলাউড়া ফাজিল মাদ্রাসা, বড়খাল স্কুল এন্ড কলেজ ও চৌধুরীপাড়া বাজার,হকনগর বাজার বাংলাবাজার ও বগুলা বাজার যাওয়া আসার জন্য দুর্ভোগ পোহাতে হত। কলোনী গ্রামের মানুষ মৌলা নদীর উপর দিয়ে বাশের তৈরী সাকো দিয়ে দীর্ঘদিন যাবত যাতায়াত করে আসছে। এটাই ছিল গ্রামবাসীর বাজার কিংবা স্কুলে আসার সহজ রাস্তা।সাকোর উপর দিয়ে স্কুল কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা ও অসুস্থ রোগীদের অনেক ভুগান্তিতে পড়তে হয় নিয়মিত। অনেক সময় স্কুল কলেজে যাওয়া আসার সময় বই খাতা নিয়ে প্রায় পানিতে পড়ে যায় শিক্ষার্থীরা। তবে এলাকাবাসীদের যাতাতের এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ পথ হওয়ায় সবাই এই নদীর উপর বাশের তৈরী সাকো দিয়ে যাতায়াত করতে বাধ্য হত।

প্রতি বছর বাঁশ দিয়ে সাকো তৈরিতে হাজার হাজার টাকা নষ্ট করতে হয় ।তাই এবার স্থানীয় ইউপি সদস্য ধন মিয়া ও গ্রামের মানুষ নব উদ্দোগে চাঁদা দিয়ে নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তরস্থাপন করলেন স্বপ্নের জনতা ব্রীজ ।এলাকাবাসী ব্রীজের নাম দিয়েছেন স্বপ্নের জনতা ব্রীজ। প্রাথমিক অবস্থায় প্রায় ১০ লক্ষ টাকা খরচ করে ১২টি পিলার স্থাপনের মধ্যে দিয়ে কাজ শুরু করবো ।আজকে আমরা প্রথম পিলারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলাম এখনে প্রায় ২০ লক্ষ টাকা লাগবে বলে জানান স্থানীয় ইউপি সদস্য ধন মিয়া। তিনি বলেন,এই মহান কাজে স্থানীয় এমপি সহ জনপ্রতিনিধিরা যদি এগিয়ে আসতো তাহলে হয়তো তাদের যাতায়াতের স্বপ্নের জনতা ব্রিজটি নির্মাণ আরো সহজ হতো ।তিনি প্রবাসী, বিত্তবান, দানশীলসহ সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য ধন মিয়া,সাবেক মেম্বার সুরুজ ভুঁইয়া, সাংবাদিক এম এ মোতালিব ভুঁইয়া, সমাজসেবক হাজী জুনাব আলী, মাহমদ আলী, কবির সরকার,মজি মিয়া,দরবেশ আলী,বদরুল ইসলাম,সুজন মিয়া, হুসেন মিয়া,নুরুল ইসলাম খা, জামাল মিয়াসহ গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিগন প্রমুখ

শেয়ার করুন
  • 461
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT