বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০২:০৮ পূর্বাহ্ন১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
সার্চ মানবাধিকার সোসাইটি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন উপলক্ষে সদস্য অভিযান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করে মানববন্ধন করেছে মধুরাপুর গ্রামবাসী সাংবাদিক শফিউলের প্রচেষ্টায় বিশ্বম্ভপুর উপজেলায় দ্বীনি মাদ্রাসা করার পরিকল্পনা বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানান পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান মানব পাচারকারী তাজুদ আলী ও মোস্তফা মিয়ার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের কুয়েতে বাংলাদেশের এম পি পাপুল গ্রেফতার সিলেট ছাড়ার আগে নগরবাসীর দোয়া চাইলেন বদর উদ্দিন আহমদ কামরান সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনে ১২ মাসের বেতনভাতা পরিশোধের দাবীতে চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের অবস্থান কর্মসূচীতে পুলিশের লাঠিপেঠা, ৬ জন আটক এতেক্বাফরত ইমাম-মুয়াজ্জিনদের হাতে পৌঁছুল প্রধানমন্ত্রী ও স্বজন সমাবেশের ঈদ উপহার জিয়াউর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকীতে যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের লাইভ ভার্চুয়াল আলোচনা সভা
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন নিজে থেকে নিঃশ্বাস নিতে পারছেন না-নিউ টাইমস্২৪

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন নিজে থেকে নিঃশ্বাস নিতে পারছেন না-নিউ টাইমস্২৪

নিউ টাইমর্স২৪ডেস্কঃ করোনাভাইরাস পজিটিভ শনাক্ত হওয়ার ১০ দিন পর যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু অবস্থা খারাপ হওয়ায় লন্ডনের সেন্ট থমাস হাসপাতালে অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে। তিনি নিজে থেকে নিঃশ্বাস নিতে পারছেন না। এমন তথ্য জানিয়েছে বৃটিশ গণমাধ্যম মেট্রো।
বরিসের চিকিৎসক তাকে পরীক্ষা করার পর হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দেন। তারপরই ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১০ দিন হলো বরিস জনসনের শরীরে করোনা ধরা পড়ে। তারপর থেকে তিনি হোম আইসোলেশনে ছিলেন। কিন্তু ১০ দিন পরেও তার শরীরে করোনার উপসর্গ সমানমাত্রায় দেখা যাওয়ায় চিকিত্‍সক আর ঝুঁকি নিতে চাননি। তাই তাকে আইসিইউতে অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে।
বৃটিশ গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, রোববার (৫ এপ্রিল) রাতে হাসপাতালেই ছিলেন প্রধানমন্ত্রী জনসন। আরো কয়েকদিন তাকে হাসপাতালেই থাকতে হচ্ছে। গত মাসের শেষের দিকে করোনা পজেটিভ হওয়ায় আইসোলেশনে ছিলেন জনসন। কিন্তু রবিবার রাতে তার শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক বলছেন যে, জনসনের আরও বেশ কিছু শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজন রয়েছে। সেখানে তার অক্সিজেন লেভেল, শ্বেত রক্তকণিকা, লিভার ও কিডনির পরীক্ষা করা হবে।
গত ২৭ মার্চ বরিসের শরীরে প্রথম করোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। তবে সে সময় করোনা খুব হাল্কাভাবে তার শরীরে অবস্থান করছিল। এদিকে, বরিস জনসনের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবর পাওয়ার পর ব্রিটেনের অনেক সাংসদ বরিসকে দ্রুত আরোগ্য কামনার শুভেচ্ছা পাঠিয়েছেন।

শেয়ার করুন
  • 98
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT