রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০৮:০৫ পূর্বাহ্ন২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নোটিশঃ
ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। নাগরিক আইটি থেকে কম মূল্যে ওয়েবসাইট বানাতে আজই যোগাযোগ করুন। কল করুন- ০১৫২১ ৪৩৮৬০১
সংবাদ শিরোনাম :
এইচ টি ইমাম এর মৃত্যুতে আলহাজ্ব মতিউর রহমানের শোক জগন্নাথপুরের ১১৪ নং দক্ষিণ প্রভাকরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন দক্ষিণ সুনামগঞ্জে লোকনাথ পূজাঁয় প্রতিপক্ষের চুরিকাঘাতে নিহত ১ আহত ২জন বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু”র রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন সম্পন্ন ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রনজিত চৌধুরী রাজনকে হত্যা করার চেষ্টার অভিযোগ বহুবিবাহ ঠেকাতে বিবাহ পদ্ধতি ডিজিটাল করা জরুরি : ফররুখ শাহজাদ চলে গেলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু ই‌ন্তেকাল বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন যুক্তরাজ্য শাখার উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হাওর ভাতা প্রাপ্যতার দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান ভাষা শহীদদের প্রতি পুরুষ অধিকার সংগঠনের শ্রদ্ধা নিবেদন
বড়ভাইয়ের সাথে শেষ খেলা খেলতে চান ছোটভাই

বড়ভাইয়ের সাথে শেষ খেলা খেলতে চান ছোটভাই

স্টাফ রিপোর্টার: আসছে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। একই পিতার দুই পুত্রের প্রকাশ্য পাল্টাপাল্টি মন্তব্য এবং পাল্টা জনসভা, উঠান বৈঠক ও জনসংযোগ প্রতিযোগিতা চোখে পড়ার মতো। বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার ভাটরা ইউনিয়ন।

এই ইউনিয়নে বারবার চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য নির্বাচিত হলেও জনগণের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি বলে ভোটাররা মন্তব্য করেছেন। অপরিকল্পিত উন্নয়নের ফলে যোগাযোগ ব্যবস্থার হয়নি উন্নতি।

তথ্যমতে, বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মোরশেদুল বারীর বিরুদ্ধে রয়েছে অনিয়মের নানা অভিযোগ। ইতিপূর্বে এক নারীকে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত মোরশেদকে নিয়ে দেশজুড়ে ব্যাপক সমালোচনা হয়েছিল। ধর্ষক হিসেবে গণমাধ্যমের শীর্ষ খবরেও ছিলেন।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর উপহার ‘ভূমিহীনদের ঘর বরাদ্দ’ দেওয়ার নামে স্বজনপ্রীতি ও আর্থিক সুবিধা গ্রহণের অভিযোগ করেন একজন ভোটার। প্রধানমন্ত্রী ও বগুড়া জেলা প্রশাসকের কাছে মোরশেদের বিরুদ্ধে পৃথক অভিযোগ করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসারও অভিযুক্ত ছিলেন।

আসছে নির্বাচনে বড়ভাই মোরশেদের অনিয়মের জবাব দিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ছোটভাই মজনুর রহমান। ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামে ভোটারদের কাছে ছুটছেন। উঠান বৈঠক ও জনসভায় বড়ভাইয়ের বিরুদ্ধে প্রকাশ্য মন্তব্য করছেন ছোটভাই। বড়ভাইও থেমে নেই। ছোটভাইয়ের বিরুদ্ধে বলছেন মোরশেদ।

এনিয়ে ইউনিয়নের কুমিড়া পন্ডিতপুকুর বাজার এলাকায় প্রায় প্রতিনিয়ত দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করে। সম্প্রতি স্কুলের শিক্ষার্থীদের মাঝে সরকারি বই বিতরণকালে ছোটভাইয়ের লোকজনের ওপর হামলা করে বড়ভাইয়ের সমর্থকরা।

কুমিড়া এলাকার জাহিদুল, গোলাপ, ছোবহান, আলমগীর সহ অর্ধশত ভোটার জানান, জনগণের আস্থা গড়েছেন মজনুর রহমান। মজনুর সহযোগিতায় মোরশেদ চেয়ারম্যান হয়। আসছে নির্বাচনে মজনুকেই প্রার্থী চান ভোটাররা।

জানা গেছে, ভাটরা ইউনিয়নের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান ছিলেন মরহুম জালাল উদ্দিন। তাঁর বড় ছেলে মোরশেদুল বারী ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি।
মরহুম জালাল উদ্দিনের ছোট ছেলে মজনুর রহমান উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। ইউনিয়ন নির্বাচন কেন্দ্র করে দুই ভাইয়ের প্রতিযোগিতায় জেলাজুড়ে ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনা চলছে।

ছাত্রলীগের রাজনীতি থেকে ২৭ বছরে উঠে আসা আওয়ামী লীগ নেতা মজনুর রহমান মজনু বলেন, মোরশেদ (বড়ভাই) জনগণের সাথে নানা অনিয়ম করেছে। নারী বিষয় সহ তাঁর কর্মকাণ্ডে আমার বাবার মানসম্মানে আঘাত লেগেছে। তরুণদের নিয়ে নির্বাচনের মাঠে নেমেছি। বাবা মরহুম জালাল উদ্দিনের পরিবারের সম্মান রক্ষার্থে শেষ খেলা খেলবো। আমার লোকজনের হুমকি সহ মাঝেমধ্যেই হামলা করে মোরশেদ।

মজনু বলেন, বাবার স্বপ্ন ছিল, আলোর মুখ দেখবে কুমিড়া পন্ডিতপুকুর। গ্রামের মানুষের দুর্ভোগের অবসান ঘটবে। কিন্তু মোরশেদ (বড়ভাই) সব লুটে নিচ্ছে।
বাবার স্বপ্ন আর জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করতে চান জানিয়ে মজনুর রহমান মজনু বলেন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেছি। চলার পথে অনেক বাধা-বিপত্তি এসেছে।

মন্তব্য নিতে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে বর্তমান চেয়ারম্যান মোরশেদুল বারী কল রিসিভ করেননি।

তবে নির্বাচন কেন্দ্র করে ভাটরা ইউনিয়নে কোনো ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের হুশিয়ারী দিয়েছেন নন্দীগ্রাম থানার ওসি মো. কামরুল ইসলাম।

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT