বি আর টিসি বাসের জানালার গ্লাস ভেঙে দিলো ড্রাইভার আরিফ।

0
92

বিশেষ প্রতিনিধিঃ- বিআরটিসি বাস চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে সুনামগঞ্জে বিআরটিসি বাসের জানালা ইচ্ছে করেই ভেঙ্গে দিয়েছে সুনামগঞ্জ বাস মিনিবাস মাইক্রোবাস মালিক সমিতির সভাপতির গাড়ির ড্রাইভার। মঙ্গলবার দুপুরে সুনামগঞ্জ সিলেট সড়কে বিআরটিসির এসি বাস যাত্রী নিয়ে আসার পথে গোবিন্দগঞ্জ এলাকায় আক্রোশান্বিত হয়ে সুনামগঞ্জ থেকে সিলেটের দিকে যাওয়া মালিক সমিতির সভাপতির গাড়ির ড্রাইভার বিআরটিসির বাসটিকে আঘাত করলে জানালার কাঁচ ভেঙ্গে যায়। এসময় যাত্রীরা প্রতিবাদ করলে পরিবহন শ্রমিকরা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা রাতে বিআরটিসি বাসে আরো বড় ধরনের ঘটনা ঘটাতে পারে এই আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন যাত্রীরা।
উল্লেখ্য সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে সম্প্রতি বিআরটিসি বাস চালুর প্রতিবাদে গত ৩ জুন এক দফা পরিবহন ধর্মঘট পালন করেছিল পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্যপরিষদ। একই দাবিতে গত ২৪ জুন দ্বিতীয় দফা সিলেট বিভাগ ও ভ্রাম্মণবাড়িয়া এলাকায় পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিলে সিলেট বিভাগ জুড়ে যাত্রীরা আন্দোলনে নামেন। বিআরটিসি বাস চালুর দাবিতে সিলেট-সুনামগঞ্জে গণঅনাস্থা কর্মসূচি, স্মারকলিপি, মানববন্ধন, সমাবেশসহ নানা কর্মসূচি পালন করেন সাধারণ যাত্রীরা। গত ২১জুন রাতে প্রশাসনের জরুরি বৈঠকে গণবিক্ষোভের মুখে পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত করে মালিক-শ্রমিকরা। তবে সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে বিআরটিসির ৮টি বাসকে চলাচালে নানাভাবেই প্রতিবন্ধকতা তৈরি করছে শ্রমিকরা। রাস্তায় গাড়ির পাস না দেয়া, বিআরটিসি ড্রাইভার-হেল্পারকে গালাগালিসহ নানাভাবেই যাত্রীদের বিআরটিসি সেবা না নিতে প্রতিবন্ধকতা করে চলছে। তবে এই প্রতিবন্ধকতার মধ্যেই যাত্রীদের সেবা দিচ্ছে বিআরটিসি।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার দুপুরে সিলেট থেকে সুনামগঞ্জে যাত্রী নিয়ে আসছিল বিআরটিসির এসি বাস। এসময় সুনামগঞ্জ থেকে সিলেটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া সুনামগঞ্জ বাস মিনিবাস মাইক্রোবাস মালিক সমিতির সভাপতি জহিরুল ইসলামের মালিকানাধীন একটি বাস উদ্দেশ্যপূর্ণভাবে বিআরটিসি বাসের জানালায় আঘাত করে ড্রাইভার আরিফ মিয়া। গাড়ির সজোর ধাক্কায় বিআরটিসি বাসের জানালা ভেঙ্গে যায়। এ সময় বিআরটিসি বাসের যাত্রীরা প্রতিবাদ করলে তাদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে জহিরুল ইসলামের ড্রাইভার ও হেল্পার।
ওই গাড়ির যাত্রী হেলেনা বেগম বলেন, হঠাৎ দেখীএকটি গাড়ি সামন দিক থেকে এসে পিছনের দিকে আঘাত করে। তখন আমরা ভয় পেয়ে যাই। গাড়ির জানালাও ভেঙ্গে পড়ে। যাত্রীরা প্রতিবাদ করলে ওই গাড়ির ড্রাইভার ও হেল্পার অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে।
বিআরটিসির সুনামগঞ্জ কাউন্টারের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিনিধি মো. আমজাদ হোসেন বলেন, গাড়ির ড্রাইভার ইচ্ছে করেই আমাদের গাড়িকে আঘাত করেছে। এতে আমাদের নতুন এসি গাড়ির জানালা ভেঙ্গে গেছে। গাড়ির যাত্রীরাও এ ঘটনায় আতঙ্কিত ছিলেন। আমরা উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করে আইনি ব্যবস্থা নিচ্ছি।
সুনামগঞ্জ বাস মিনিবাস মাইক্রোবাস মালিক সমিতির সভাপতি মো. জহিরুল ইসলাম বলেন, আরিফ নামের আমার এক ড্রাইভার আছে। তবে সে বিআরটিসি বাসের জানালা ভেঙ্গেছে কি না তা তার জানা নেই বলে জানান তিনি।
সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বলেন, জনগণের দাবির প্রেক্ষিতে সরকার সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে বিআরটিসি বাস চালু করেছে। সরকারি মালিকানাধীন গাড়িকে সরকারি রাস্তায় চলাচলে প্রতিবন্ধকতা করা অনৈতিক। বিআরটিসির সংশ্লিষ্টরা আমাকে জানিয়েছেন। আমি তাদেরকে আইনিভাবে ব্যবস্থা নিতে বলেছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here