ছাতকে একটি দুর্গা প্রতীমার অঙ্গ ভেঙ্গে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা, পুলিশ সুপারের ঘটনাস্থল পরিদর্শন

0
443

আলী হোসেন: সুনামগঞ্জের ছাতকে দুর্গা প্রতীমার অঙ্গ ভেঙ্গে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার রাতে শহরের মন্ডলীভোগস্থ শ্রী শ্রী চৈতন্য সংঘের পূজা মন্ডপে এই অনাকাংঙ্খিত ঘটনাটি ঘটে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঘটনার খবর পেয়ে সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেনছাতক পৌর এলাকার হিন্দু কমিউনিটির নেতৃবৃন্দরা।

পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জেলা হচ্ছে সুনামগঞ্জ । এই জেলায় সম্প্রীতির ইতিহাস অত্যন্ত গৌরবোজ্জ্বল যা দেশের অন্য কোন জেলায় এমনটা খুব কম দেখা যায়। কতিপয় দুস্কৃতিকারী কর্তৃক এ ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে। এসব ঘটনা এড়াতে নিজেদের সতর্ক থাকার প্রয়োজন রয়েছে। এ ঘটনাকে অন্যভাবে দেখার কোন প্রয়োজন নেই। তিনি বলেন, নিশ্চিন্তে ও নির্বিঘ্নে শারদীয় উৎসব পালন করতে রাষ্ট্র দেশে অবস্থিত প্রতিটি ধর্মের মানুষের নিরাপত্তা দিতে বদ্ধ পরিকর। আগামী আসন্ন দূর্গাপূজাকে সামনে রেখে প্রতিটি পূজামন্ডপে পূজা নির্বিঘ্নে পালনে আমাদের আইন শৃংখলা বাহিনীর প্রতিটি সদস্য প্রস্তুত থাকবে বলে হিন্দু কমিউনিটি নেতৃবৃন্দদের আশ্বস্ত করেন।

ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তফা কামাল বলেন,যে বা যারাই সম্প্রীতির বন্ধন বিনষ্ট করতে প্রতিমা ভাংঙ্গার অচেষ্টা করছিলেন,তারা এই দেশে সংখ্যায় অতি নগন্য। তারাযে কেহই হোক অপরাধ করে আইন শৃংখলা বাহিনীর হাত থেকে বাচঁতে পারবে না। তিনি বলেন আমাদের সুযোগ্য পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে শীঘ্রই এই দুস্কৃতিকারীদের চিহিৃত করে তাদেরকে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি প্রদানের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন, ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তফা কামাল, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এড. পীযুষ ভট্টাচার্য্য, উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক হরিদাস রায়, সাধারন সম্পাদক বাবুল পাল, ছাতক প্রেসক্লাবের সভাপতি সৈয়দ হারুন-অর রশীদ, শিক্ষক প্রনব দাস মিটু, লিটন ঘোষ, আশিষ কুমার দাস প্রমুখ। এসময় পৌরসভার প্যানেল মেয়র তাপস চৌধুরী, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মানিক চন্দ্র দাস, আওয়ামীলীগ নেতা শাহীন চৌধুরী, পৌর কাউন্সিলর দিলোয়ার হোসেন, ধন মিয়া, নওশাদ মিয়াসহ বিভিন্ন পূজা কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here