সম্রাটকে গ্রেফতারের সাথে হাতকড়াটি যেন আমাকে স্থব্দ করে দিয়েছে রাজনীতির পথ থেকে।

0
77

নিউ টাইমর্স২৪ ডেস্কঃ সম্রাটকে গ্রেফতারের সাথে হাতকড়াটি যেন আমাকে স্থব্দ করে দিয়েছে রাজনীতির পথ থেকে,,
যে সম্রাট ঢাকা মহানগর দঃ যুবলীগকে করেছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়েও শক্তিশালী আজ তাকে সবার দোষে দোষারোপ করে নির্মমতার অবিষেকে,
আমি গতকাল একটি বেসরকারি টেলিভিশনের ভাষ্যকারে যখন বলছিলেন সম্রাট যুবদল থেকে যুবলীগে আগত
আমি অবাক হয়ে গেলাম কি বলছে সে! সম্রাট ছাত্রলীগ থেকে যুবলীগে এসছেন আর মিডিয়া কর্মী যুবদলের কথা বলছেন! যাক হয়তো সাংবাদিক সাহেবের ভুল হতে পারে বটে তবে সেটা তার সংশোধন করা দরকার ছিলো,,

যে সম্রাট সংগঠনের জন্য এত কিছুই করেছেন যা এখন সবার সব অপরাধের দায় যেন সে নিজে ইচ্ছে করেই হয়েছেন, যেন সবার অপরাধ নিজের কাঁধেই নিলেন,,
এখন আমাদের জনমনের দাবি হলো এইসকল অপরাধের পিছনে তো কোন অশুভ শক্তি কাজ করেনি? যা সম্রাট বুঝতে পারেনি!
এমন তো নয় 🇧🇩 আওয়ামীলীগকে ধ্বংশ করতে অনুপ্রবেশকারীদের একটি ষড়যন্ত্র,,যা আমাদের খতিয়ে দেখা অতিব জরুরী,,
এইদিকে বাংলাদেশের আওয়ামীলীগের সম্মানিত সভাপতি সরকার প্রধানের ভুমিকা বাংলার ইতিহাসের যেন আরেক নতুন অধ্যায়ের রচিত হয়েছে,
ন্যায়পরায়নতার দিকেই তিনি ছুটছেন অবিরাম গতিতে, যেন নেই কোন ক্লান্ত নেই কোন স্থব্দতার পরিকল্পনা,যা বিশ্ব অবাক যেন বিশ্ব হেরে গেলো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাহসিকতার সহিত,,
সম্রাটকে যখন দেখলাম জন আর মিডিয়া সমুদ্রে হাতকড়া পরা তখনই মনে হলো তুমি যদি ত্যাগী আর পরিশ্রমী হয়ে বড় নেতা হবে তখনই দেশ বিরোধীদের ষড়যন্ত্রে কাছে তুমি হেরে যাবে নির্মমতায়ই যেন হবে তোমার ঠিকানা তা না হলে সম্রাট যে অপরাধী তার কারন খোঁজা দরকার ছিলো,
সম্রাটকে কারা সৃষ্টি করলো! সেটা যদি সরকার বের করতে ব্যর্থ হয় তবে যেন রাজনীতির মানবতা বলতে কিছুই রবে না সংশয়ে রবে ত্যাগী কর্মীগন, দিন দিন জয়ী হতে থাকবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার পরিকল্পনাকারী অনুপ্রবেশকারীগন,,
আমরা ও অনুপ্রবেশকারী উভয় পক্ষই বিশ্বাস করি একটি বাংলাদেশের জন্য যেমন একটি মজিব জন্মে ছিলো
আর সেই ক্ষুধা দারিদ্র সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে আরেকটি শেখ হাসিনাও জন্মাবে না,
তাই অনুপ্রবেশকারীদের স্বপ্ন শেখ হাসিনা নিপাত যাক আর আমাদের স্বপ্ন শেখ হাসিনাকে বাঁচিয়ে রাখা,, অভিযান যেন প্রশ্নবিদ্ধ না হয়, অনুপ্রবেশকারীদের ষড়যন্ত্র যেন সফল না হয়, সেইদিকেই আমাদের লক্ষ রাখতে হবে।।
সংগহ ফেসবুক পোষ্ট থেকে।
মোঃ আকরাম হোসেন বাদল
সদস্য, কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি,বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ,
সভাপতি-জয়বাংলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনিবাহী সংসদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here